Uncategorized

গাড়িতে স্টিল বাম্পার কতটুকু কার্যকরী?

বাংলাদেশে শতকরা বেশিরভাগ গাড়িতেই মানুষ স্টিল/এ্যালুমিনিয়ামের বাম্পার লাগিয়ে থাকেন। অনেকেই হয়তো চিন্তা করেন, এই বাম্পার গাড়িকে এক্সিডেন্ট এর ক্ষয়ক্ষতি থেকে রক্ষা করবে। কথাটা কিছুটা সঠিক, তবে পুরোপুরি সঠিক না।

এবার আসি আসল কথায়, স্টিল বাম্পার গাড়ি লাগানো একেবারেই উচিত না। কারণ, প্রত্যেকটা গাড়িতেই সামনে কিছু সেন্সর থাকে, যেইগুলা গাড়িতে কখনো বড় ধাক্কা আসলে এবং সেন্সর ডিটেক্ট করতে পারলে, যাত্রীদের নিরাপত্তার জন্য যে এয়ারব্যাগ গাড়িতে থাকে, সেইগুলো ফুলে বেরিয়ে আসে। যেটা অনেক গুরুত্বপূর্ণ একটা সেইফটি ফিচার্স। শুধুমাত্র গাড়ির এয়ার ব্যাগ একটা এক্সিডেন্ট থেকে মানুষকে বড় আঘাত এমনকি মৃত্যু ঝুঁকি থেকেও রক্ষা করতে পারে। কিন্তু, গাড়ির সামনে যদি বাম্পার লাগানো থাকে, তাহলে এক্সিডেন্ট করলে অনেকসময় গাড়ির সেন্সরগুলো বুঝতে পারে না যে গাড়ি বড় কোনও ধাক্কার সম্মুখীন হচ্ছে! যার কারণে অনেকসময় এয়ারব্যাগ বের হয় না। যেইটা অনেক বড় ঝুঁকি।  কিছুদিন আগেও একটা প্রিমিও ২০১৬/১৭ মডেলের গাড়ির এক্সিডেন্ট এর ছবি দেখছিলাম, যেটায় বেশ জোরেশোরেই একটা পিলার এর সাথে ধাক্কা খাইছিলো। কিন্তু এয়ারব্যাগ ডিপ্লয় হয় নাই। সেই গাড়িতেও সামনে স্টিল বাম্পার ছিলো।

একটা বাম্পার শুধুমাত্র আপনার গাড়িকে ছোটখাটো স্ক্র‍্যাচ, জ্যামের মধ্যে রিকশা/সিএনজির ছোটখাটো খোঁচা থেকে হয়তো রক্ষা করতে পারবে। তবে, বড় এক্সিডেন্ট এ স্টিল বাম্বার বিন্দুমাত্রও আপনার গাড়ির কোনও সুরক্ষার কাজে আসবে না।  তবে মনেরাখবেন, সামান্য স্ক্র‍্যাচ থেকে নিরাপদ রাখতে, আপনি এবং আপনার পরিবার গাড়িতে অনিরাপদ হয়ে যাচ্ছেন না তোহ?

একটা গাড়ি বছরের পর বছর রিসার্চ করে কোম্পানি বাজারে ছাড়ে। সাথে এমনভাবে গাড়িটা বানায়, যাতে গাড়িতে বাড়তি আর কিছুর প্রয়োজন না হয়। বাম্পার যদি এতোই প্রয়োজন হয়ে যেতো, তাহলে কোম্পানিই গাড়ির সাথে স্টিল বাম্বার লাগায় দিতো। বাংলাদেশের মতো হাতেগোনা কয়েকটা দেশ ছাড়া, পৃথিবীর বেশিরভাগ দেশেই কেও গাড়ির সাথে স্টিল বাম্বার ব্যবহার করে না। এছাড়াও স্টিল বাম্পার গাড়ির সৌন্দর্য ও নষ্ট করে।

আরেকটা কথা, গাড়ি ড্রাইভ করার সময় অবশ্যই অবশ্যই সিটবেল্ট ব্যাবহার করবেন। সিট বেল্ট বাঁধা না থাকলেও অনেকসময় গাড়ির এয়ারব্যাগ বের হয় না। সিটবেল্ট ও আপনার নিরাপত্তার জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ। গাড়িতে যতজন যাত্রী থাকবে, একদম  প্রত্যেকেরই সিট বেল্ট বাঁধা উচিত। গাড়ির ড্রাইভার যদি সিটবেল্ট না বাধে, তাহলে গাড়ি থেকে একটা এলার্ট সিগনাল আসে, অনেক ড্রাইভার গাড়ির সেই এলার্ট সিগনাল বন্ধ করার জন্য অর্থাৎ এককথায় গাড়িকে বোকা বানানোর জন্য, সিটের উপরে শরীরের পেছন দিয়ে সিটবেল্ট লক করে রাখে। যেই কাজ কখনোই করবেন না।

মনে রাখবেন, নিজের এবং নিজ পরিবারের জীবন, নিরাপত্তা সবার আগে। Safe Drive💝

Back to list

Leave a Reply