Uncategorized

৩৫-৪০ লাখ টাকা বাজেটের মধ্যে যেইসব গাড়ি পাওয়া যায়

১- MG ZS-  এমজি, ব্রিটিশ ব্রান্ড! পূর্ণরূপ হলো মরিস গ্যারেজ। যদিও বর্তমানে চায়েনিজ একটা কোম্পানি এমজির মালিক। চায়েনিজ হলেও এমজি বেশ ভালো কোয়ালিটির গাড়ি বানায়। বাজেট হিসেবে MG ZS অন্যতম সেরা একটা গাড়ি। ৩৫ লাখ আশপাশে আপনি পেয়ে যাবেন ২০২২ মডেল, ব্রান্ড নিউ MG ZS মডলের গাড়ি। অসংখ্য আকর্ষণীয় ফিচার্স দিয়ে ভরা এই গাড়ি। এছাড়াও এমজি এই গাড়ির সাথে ৩ বছরের ওয়ারেন্টি দিচ্ছে!

২- Haval Jolion- বাজেটের মধ্যে অন্যতম সেরা একটা গাড়ি হলো হাভাল জোলিয়ন। বাংলাদেশের রাস্তায় এই গাড়ির জনপ্রিয়তা দিনদিন বাড়ছেই! দুর্দান্ত ডিজাইনের কারণে, হাভালের চাহিদা বর্তমানে বাংলাদেশে বেশ ভালোই এবং দিনেদিনে বাড়ছে। অসংখ্য আধুনিক ফিচার্স সম্পন্ন ২০২২ মডেলের এই ক্রসওভার গাড়িটি ব্রান্ড নিউ পাওয়া যাচ্ছে ৩৫ লাখ টাকার আশপাশে। বাজেট হিসেবে এই গাড়িকে একদম ভ্যালু ফর মানি বলা যায়। এই গাড়ির সাথেও পাওয়া যাচ্ছে ৩ বছরের অফিসিয়াল ওয়ারেন্টি।

৩- Proton X-50- এই গাড়ি বাংলাদেশে আসছে অল্প কিছুদিন আগেই। বড় জোড় মাস দুয়েক হবে। Proton X-50, কম্প্যাক্ট সাইজ একটি ক্রসওভার। দেখতেও বেশ সুন্দর। এছাড়াও এই গাড়িতে ভয়েস কন্ট্রোল আছে! আপনি গাড়িতে ভয়েস কমান্ডের মাধ্যমে বেশ কিছু ফিচার্স ব্যবহার করতে পারবেন। এছাড়াও সানরুফ এবং অসংখ্য আধুনিক ফিচার্স আছে এই গাড়িতে। প্রোটন মালেশিয়ান একটি কোম্পানি এবং এই গাড়ি সরাসরি মালেশিয়া থেকেই আসে। বাংলাদেশে প্রোটন এর ডিলার হলো পিএইচপি অটোমোবাইলস। সবচেয়ে সুন্দর ব্যাপার হলো, পিএচইপি অটোমোবাইলস প্রোটন এর সব গাড়ির সাথে ৫ বছরের ওয়ারেন্টি দিচ্ছে! যেটা অন্য কোনও ব্রান্ড দেয় না। এছাড়াও প্রোটনের গাড়ির কোয়ালিটিও বেশ ভালো। ঢাকায় প্রোটন এখনো কিছুটা কম দেখা যায়, তবে চট্টগ্রামে প্রোটন গাড়ির বেশ ভালোই চাহিদা আছে।

৪- DFSK Glory I Auto- DFSK ও একটি চায়েনিজ ব্রান্ড। বেশ আকর্ষণীয় ডিজাইনের একটি গাড়ি। এছাড়াও এটি ৭ সিটের গাড়ি। সানরুফ এবং আধুনিক অনেক ফিচার্স পাবেন এই গাড়িতে। এছাড়াও ভয়েস কমান্ডের সুযোগ আছে এই গাড়িতে! বাংলাদেশে DFSK Glory র বর্তমান দাম ৩৫ লাখ টাকার আশপাশে এবং আপনি ডিলার থেকে ব্রান্ড নিউ ২০২২ মডেলের গ্লোরি কিনতে পারবেন।

৫- Nissan X Trail-  এই বাজেটের মধ্যে একমাত্র এসইউভি গাড়ি হলো নিসান এক্সট্রেইল। বেশ সুন্দর একটা গাড়ি। এই গাড়ি হাইব্রিড এবং ননহাইব্রিড দুইরকমই হয়ে থাকে। এছাড়াও এক্সট্রেইল জেডিএম গাড়ি। অনেক ভালো বিল্ডকোয়ালিটি এবং রিলায়েবল গাড়ি। জাপানি গাড়ি হওয়ায় আমাদের লিস্টের অন্যান্য চায়েনিজ অথবা মালেশিয়ান গাড়ির চেয়ে এক্সট্রেইলের রিসেল ভ্যালু সবচেয়ে ভালো। এসইউভি হওয়ায় এই গাড়িতে অফরোডিং করতে পারবেন এবং কম্ফোর্ট অনেক ভালো। বর্তমানে নিসান এক্সট্রেইল ২০১৭ মডেল রিকন্ডিশন ইউনিটের দাম ৩৫-৫০ লাখ টাকার মধ্যে।

৬- Honda Civic-  আমাদের লিস্টের একমাত্র সেডান গাড়ি হোন্ডা সিভিক। অসাধারণ ডিজাইন এবং পার্ফরমেন্সের জন্য এই গাড়ি সারা পৃথিবীতে জনপ্রিয়। বাংলাদেশেও সিভিক বেশ জনপ্রিয় একটা গাড়ি। সিভিকের ড্রাইভিং এক্সপেরিয়েন্স অনেক অনেক ভালো। দেখতেও অনেক স্পোর্টি। হোন্ডা সিভিক রিকন্ডিশন এবং ব্রান্ডনিউ দুইরকমই পাওয়া যায়। রিকন্ডিশন ১০ম জেনারেশন, ২০১৭ মডেল সিভিকের দাম ৩২-৩৫ লাখ টাকা এবং ব্রান্ড নিউ ১১তম জেনারেশন ২০২২ মডেল হোন্ডা সিভিকের দাম বর্তমানে ৪০ লাখ টাকার আশপাশে।

Back to list

Leave a Reply