Uncategorized

HAVAL H6 নাকি PROTON X70

বিভিন্ন ধরনের গাড়ির মধ্যে সকলের নিকট SUV শেইপের কার গুলো বেশি প্রিয়। বর্তমান বাজার এ আপনি ৩৮-৪২ লাখ টাকা দিয়েই কিন্তু SUV CAR নিতে পারবেন তাও আবার আধুনিক সব ফিচারস থাকবে।ভালো কথা ট্যাক্সের কথা চিন্তা করলে ২টি গাড়ির যেকোনো ১ টি নিতে পারেন কারন এগুলো ১৫০০ সিসি গাড়ি আওতাভুক্ত । কারন H6 ১৫০০ সিসি   এবং  X70  ১৪৭৭ সিসি.

বাংলাদেশের বাজারে এই বাজেটের মধ্যে কয়েকটি SUV থাকলেও HAVAL H6 ও PROTON X70 নিয়ে আজকে আমরা  কথা বলবো।

চাইনিজ Great Wall Motor এর তৈরি HAVAL এর যাত্রা শুরু হয় ২০১১ সালের Shaghai Auto Show তে। অন্য দিকে মালশিয়ার ব্রান্ড PROTON ১৯৮৫ সালে যাত্রা শুরু করে। এমনকি এটি মালয়েশিয়াতে জাতীয় কার ব্র্যান্ড। বর্তমানে আমাদের দেশের PHP Motor এর সহযোগিতায় তারা মালশিয়া থেকে Proton এর গাড়ি গুলো আমদানি করছে সেই সাথে Proton Saga আমাদের দেশে অ্যাসেম্বল করা হচ্ছে।

আসুন জেনে নেই HAVAL H6 ও PROTON X70গাড়ি গুলোর কোনটিতে কি থাকছে বা না থাকছে।

ইঞ্জিনঃ  151 HP বিশিষ্ট HAVAL H6 এর ইঞ্জিন যা 230 NM Torque উৎপন্ন  করে। অন্য দিকে 181 HP বিশিষ্ট Proton X70 এর ইঞ্জিন যা 255 NM Torque উৎপন্ন করতে পারে।

  • ২টি গাড়ি 1.5 Turbo Charged তবে H6 4cyl Engine এবং  X70 3cyl Engine।
  • গাড়ি ২টিতে রয়েছে WET DCT (Dual Clatch Transmission)।
  • ২টি গাড়ির সামনে পিছনে ডিস্ক ব্রেক আছে।
  • H6 এ থাকছে অটোমেটিক পার্কিং ।
  • নরমাল, ইকো, স্পোর্টস  মোড ২টি গাড়িতেই আছে। তবে এক্ষেত্রে H6 এর মধ্যে স্পোর্ট ফিল পাওয়ার জন্য Steering এ বিভিন্ন মোড রয়েছে-নরমাল, স্পোর্ট ।এর সাথে H6 এ থাকছে ২টি প্যাডেল শিফটার।
  • গাড়ি ২টি গ্রাউন্ড ক্লিয়ারেন্স বেশ ভালোই R18 ও R19 Allow RIM আছে। 225/60 বা 55  টায়ার।

এবার ইন্টেরিওরে আসিঃ

  • গাড়ি ২টিতে 360 degree ক্যামেরা রয়েছে। তবে H6 এদিক থেকে এগিয়ে কারণ গাড়ির ডান দিকে গেলে আটোমেটিক  ডান দিকের ক্যামেরা অন হয়ে যাবে।
  • Rear AC Vent থাকছে ২টি গাড়িতেই।তার নিচে থাকছে ২ টি ১২ ভোল্টের সকেট।
  • H6 এ রয়েছে Wirless Mobile Charger যা X70 তে নেই।
  • গাড়ি ২টির ইন্টেরিওর Full Synthetic Leather দ্বারা তৈরি।
  • X70 তে Voice কমান্ড থাকলেও H6 এ নেই।
  • H6 এ রয়েছে ১টি Heads Up Display আর ১টি ডিজিটাল ক্লাস্টার মিটার যা আপনার পছন্দ মতো Theme চেঞ্জ করতে পারবেন। X70 তে 8inch Heads up display ও ১টি মেনুয়াল ক্লাস্টার মিটার।
  • Panoramic Sunroof থাকছে ২টি গাড়িতেই।
  • H6 এ রয়েছে Tire Pressure Monitoring System যা খুবই দরকারি।

বাকি সিদ্ধান্ত আপনার যেটি আপনার ভালো লাগবে সেটি নেয়াই আপনার জন্য শ্রেয়।

ধন্যবাদ

কারস ফিড বিডির সাথেই থাকুন

মনে রাখবেন,সময়ের চেয়ে জীবনের মূল্য বেশি তাই

সাবধানে গাড়ি চালাবেন ভালো থাকবেন

Back to list

Leave a Reply