Uncategorized

সিসি, হর্স পাওয়ার ও টর্ক কি?

আমরা সকলেই সিসি,হর্স পাওয়ার ও টর্ক এই ৩টি শব্দের সাথে পরিচিত ।কিন্তু এগুলোর আসল অর্থ কি সেটা হয়তো অনেকেরই  অজানা। আসুন আমরা সংক্ষেপে জানার চেষ্টা করি ।

সিসিঃ সিসি হলো ইঞ্জিন সিলিন্ডারের আকার যার পূর্ণরূপ হলো কিউবিক সেন্টিমিটার। ইঞ্জিনের সিলিন্ডারে থাকা বায়ু ও জালানির পরিমান বোঝায়।উদাহরণস্বরূপ, যদি একটি ইঞ্জিনের ধারণক্ষমতা ১৫০০ সিসি বা ১৫০০  ঘন সেন্টিমিটার হয়, তাহলে সেই ইঞ্জিনের ধারন ক্ষমতা 1.5 লিটার। অর্থাৎ,১৫০০  সিসিকে লিটারে রূপান্তর করলে হয় ১,৫ লিটার । তাহলে আমরা বুঝতে পারলাম কোনো ইঞ্জিন যদি ১৫০০ সিসি হয় তাহলে সেই ইঞ্জিনের ৪টি সিলিন্ডারের মোট  ধারন ক্ষমতা ১.৫ লিটার। তাহলে প্রতিটি সিলিন্ডারের ধারন ক্ষমতা হবে (১৫০০/৪)=৩৭৫ লিটার।

হর্স পাওয়ার কি?

ইঞ্জিন দ্বারা উৎপাদিত শক্তির পরিমান হলো হর্সপাওয়ার। একটি সাধারণ নিয়ম হিসাবে, অশ্বশক্তি যত বেশি হবে, ইঞ্জিন তত বেশি শক্তি উৎপন্ন করে এবং তা চাকাতে ডেলিভার করে । সাধারনত আমরা যেসব গাড়ি ব্যাবহার করি সেসব গাড়ি ১০০-২০০ হর্সপাওয়ার হয়ে থাকে তবে স্পোর্টস কারগুলোতে আরও বেশি হয়।

এবার জেনে নিই টর্ক কি?

টর্ক হলো শক্তির একটি পরিমাপকে বোঝায়। সহজ করে বলতে গেলে, একটি ঘুর্ননশীল গতি যা ত্বরণে পরিনত হয় । আবার টর্ক মানে হলো গাড়ির ইঞ্জিন কতটা বল প্রয়োগ করতে পারে তার পরিমানকে বোঝায়। টর্কের একক পাউন্ড ফুট (lb ft) বা Nm (নিউটন মিটার)। খাড়া বা ঢালু রাস্তায় গাড়ি চালানোর সময় এই টর্ক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। আমরা অনেক সময় ট্যাক্সিতে করে উচু স্থানে উঠার সময় দেখতে পাই যে ট্যাক্সির গতি কমে যাচ্ছে এটি হয় টর্কের কারণে । তাই বোঝা যায় গাড়ির গতিকে ঠিক রেখে যদি পাহাড়ি রাস্তায় গাড়ি চালাতে চান তাহলে টর্ক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।

ধন্যবাদ

কারস ফিড বিডির সাথেই থাকুন

মনে রাখবেন,সময়ের চেয়ে জীবনের মূল্য বেশি তাই

সাবধানে গাড়ি চালাবেন ভালো থাকবেন

Back to list

Leave a Reply